ধর্ম ও সমাজসেবা রাজ্য

বিধায়ক মিল্টন রশিদের আবেদনেই রাজ্যে পন্ডিত পুরোহিতদের ভাতা চালু

নজরে বাংলা, সিউড়ী (বীরভূম) : সম্প্রতি রাজ্য সরকার এবার হিন্দু সম্প্রদায়ের পন্ডিত- মন্দিরের পুরোহিত- টোলের অধ্যাপকদের জন্য ভাতা দেবার কথা চিন্তাভাবনা করছে। আর সেই নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, পৌর ও নগরান্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম তা চালু করার কথা ঘোষনা করেছেন। পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীও টোলের অধ্যাপক – মন্দিরের পুরোহিতদের নিয়ে সম্মেলন করেছেন। বছর দুয়েক আগেই যা করেছিলেন বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। এবার রাজ্য সরকার যে ভাবে পুরোহিত- পন্ডিতদের ভাতা দেবার কথা বলছেন তা রাজ্যের কংগ্রেস বিধায়ক বীরভূমের হাঁসন কেন্দ্রের মিলটন রসিদের জন্যই।

বীরভূমের হাঁসন কেন্দ্রের কংগ্রেসের বিধায়ক আইনজীবি মিলটন রসিদ দাবি করে বলেন, তিনি পুরোহিত- পন্ডিত- টোলের অধ্যাপকদের জন্য ভাতা চালুর দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছিলেন আগেই। বিধানসভায় প্রশ্নও করেছিলেন, কেন তাঁরা ভাতা পাবেন না। মিলটন রসিদের প্রশ্ন বিধানসভায় গৃহীত হলেও তার কোনও উত্তর পাননি বলে অভিযোগ করেন। এরপর বীরভূম, মালদহ সহ রাজ্যের একাধিক জেলায় তিনি পুরোহিত- পন্ডিতদের নিয়ে আন্দোলন, মিছিল করেন। এমনকি নিজেই বুকে প্লার্কাড ঝুলিয়ে সিউড়ী শহরের জেলাশাসক, এসপি অফিসের রাস্তায় ঘুড়ে বেড়ান যে পুরোহিতদের ভাতা চালু করতে হবে।

সম্প্রতি রাজ্য সরকার পুরোহিতদের ভাতা চালুর জন্য ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণ করলে মিলটন রসিদের দাবি রাজ্যে মুসলিম সংখ্যালঘু বিধায়কের জন্যই রাজ্য সরকার পুরোহিত- পন্ডিত- টোলের অধ্যাপকদের জন্য ভাতা চালু করতে চাইছে। তিনি আরো বলেন, পশ্চিমবঙ্গে ধর্ম নিয়ে ভাগাভাগি, রাজনীতি চলবে না। সব ধর্ম সম্প্রদায়ের মানুষ নিয়ে সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে।

NB

Leave a Reply