ধর্ম ও সমাজসেবা রাজ্য

বিশেষ চাহিদা সম্পন্নরা পরিবেশের বার্তা নিয়ে পৌঁছালেন প্রতিমা দর্শনে

 

মলয় দে, নজরে বাংলা, শান্তিপুর (নদীয়া) : নদীয়া জেলাব্যাপী বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদের জন্য কাজ করা সংগঠন “প্রতিবন্ধন”। বিননগর, বাদকুল্লা, তাহেরপুর, কৃষ্ণনগর, রানাঘাট, শান্তিপুর, আরংঘাটা সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ট্রাই-সাইকেল, বাই-সাইকেল চালক প্রত্যেকের সামনে পেছনে পরিবেশ সচেতনতা বার্তা নিয়ে আজ তারা ফুলিয়া শান্তিপুর বাদকুল্লায় ঠাকুর দেখতে বেরিয়েছিল। সংগঠনের পক্ষ থেকে ৪২টি বারোয়ারীকে শুভেচ্ছা বার্তার সাথে, পরিবেশ সম্পর্কিত ১১টি তথ্য জনসাধারণের সচেতনতার জন্য শংসাপত্র হিসেবে প্রদান করলেন বারোয়ারি পূজা কমিটির সদস্যদের হাতে। ৪২টি ট্রাই সাইকেল, ১৮টি বাইসাইকেল, চারটি টোটো সমেত প্রায় ৯০ জনের সুবিশাল এই অভিনব সংঘবদ্ধ পরিবেশ সম্পর্কিত প্ল্যাকার্ড লাগিয়ে সুসজ্জিত লাইন পথচলতি দু’পাশের সাধারণ মানুষের মনে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। প্রত্যেকেই প্রায় ৫০ কিলোমিটারের বেশি পথ অতিক্রম করেছে সাইকেল এবং ট্রাই-সাইকেলে।

বারোয়ারি উদ্যোক্তারাও ভীষণ খুশি এদের পেয়ে। শরবত, চা-বিস্কুট, লাড্ডু সকালের টিফিন, নতুন বস্ত্র, দুপুরের ভোগ উজাড় করে দিয়েছেন বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদের। শান্তিপুরের বিভিন্ন পরিবেশ সংস্কৃতিক সামাজিক বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা, সাংবাদিক বন্ধুগণ, পুলিশ প্রশাসন সকলের সহযোগিতায় জেলায় ইতিহাস হয়ে থাকলো মহাষ্টমী। সংগঠনের সভাপতি সুজন দত্ত জানান, ঘরে বসে এবং ছোটবেলা থেকে প্রতিবন্ধী শব্দ শুনে আমরা অনেক পিছিয়ে পড়েছি। তাই আগামী প্রজন্মকে সাথে নিয়ে প্রতিবন্ধী নাই প্রতিদ্বন্দ্বী হতে চাই। কবি কাজী নজরুল ইসলামের ভাষায় :  “থাকব নাকো বদ্ধ ঘরে/ দেখবো এবার জগৎটাকে…।”

NB

Leave a Reply